আরও দেখুন

সমাজের দায়শোধ

কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের কার্যক্রমের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। ব্র্যাক ব্যাংকের সিএসআর হচ্ছে - যে-দেশে ব্যাংকটি পরিচালিত হয় সেই সমাজের প্রতি এর নৈতিক প্রতিশ্রুতি। ব্র্যাক ব্যাংকের কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) - ‘থ্রি পি’ (মানুষ, বিশ্ব, মুনাফা) সেই আদর্শের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ - যা এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান স্যার ফজলে হাসান আবেদ, কেসিএমজি’র দৃষ্টিভঙ্গিতে গঠিত, যিনি এই ব্যাংকটি ব্যাংকিং-সেবার বাইরে থাকা তৃণমূল মানুষকে অর্থনৈতিক স্রোতধারায় অন্তর্ভুক্তির জন্য প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ব্র্যাক ব্যাংকের সিএসআর-কৌশল একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় - যা সমাজের ও আমাদের অংশীদারদের টেকসই উন্নয়নের অভিপ্রায় প্রকাশ করে; অর্থাৎ - সামাজিক, পরিবেশগত, নৈতিক, মানবাধিকার বা গ্রাহকসংশ্লিষ্ট বিষয়সমূহ ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনায় ও প্রধান কর্মকৌশলের সাথে সমন্বয় করে নীতিমালা ও কার্যপদ্ধতি প্রণীত হয়েছে - আর এসবই অংশীদারদের সঙ্গে যৌথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে করা হয়েছে।

ব্র্যাক ব্যাংকের সিএসআর কার্যক্রমের সামগ্রিক লক্ষ্য হলো - সমাজে ইতিবাচক প্রভাব বিস্তার, একইসঙ্গে এর স্বত্ত্বাধিকারী, কর্মী, শেয়ারহোল্ডার এবং মূল অংশীদারবৃন্দের শেয়ারের মানের সর্বোচ্চ বৃদ্ধি।

আমাদের সিএসআর পরিকল্পনা তৈরির সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের সিএসআর নির্দেশনা অনুসৃত হয়েছে। ব্র্যাক ব্যাংক মানুষ ও সমাজের উপর টেকসই ও দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব রাখার জন্য স্বল্পমেয়াদী নয়, বরং দীর্ঘমেয়াদী কর্মসূচি অগ্রাধিকার দেয়। ব্র্যাক ব্যাংকের কর্মীবৃন্দের পথচলার উদ্দেশ্য বৃহৎ। তাঁরা বার্ষিক তহবিল গঠনের জন্য ম্যারাথন, শীতবস্ত্র বিতরণ ও রক্তদান কর্মসূচির মতো ব্যাংকের সামাজিক কর্মসূচিতে প্রণোদিত হয়ে অংশ নেন। সিএসআর কার্যক্রমে কর্মীদের ব্যাপক অংশগ্রহণ ব্যাংকের সিএসআর-এর ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

আমাদের দর্শন



ইতিবাচক অর্থনৈতিক, সামাজিক ও পরিবেশগত প্রভাব বিস্তার করে ব্যাংকিং-সেবা প্রদানে মূল ভূমিকা পালন করার জন্য ব্র্যাক ব্যাংক গর্বিত। একটি মূল্যবোধসম্পন্ন ব্যাংক হিসেবে ব্র্যাক ব্যাংক ‘থ্রি পি’ (মানুষ, বিশ্ব ও মুনাফা) দর্শনে বিশ্বাসী। এটি আমাদের মূল্যবোধের মধ্যে এমনভাবে সন্নিবেশিত রয়েছে যে - তা আমাদের আর্থিক ফলাফলকেও অতিক্রম করতে উদ্বুদ্ধ করে। এই দর্শন আমাদের কার্যক্ষমতা সম্প্রসারণের কেন্দ্রবিন্দু, কেননা আমরা মূল ব্যাংকিং দক্ষতার ক্ষেত্রে উপজীব্যের দিকে মনোযোগ দিয়ে থাকি - যা বিস্তৃত পরিসরে বাণিজ্যিক মূল্য বৃদ্ধি করে। একটি খ্যাতনামা ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমরা সামাজিক দায়িত্ব সম্পর্কে অত্যন্ত সচেতন। সফল ও টেকসই ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালিত হতে এটিই আমাদের মূল চালিকাশক্তি। আমাদের মূল্যবোধকে সংজ্ঞায়িত করা হয় আমাদের কৌশলগত পরিচালনার মানের মাধ্যমে - যা টেকসই ও সার্বিক মানে পৌঁছানোর আকাঙ্ক্ষা জাগ্রত করে।

সামাজিক, অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত কাঠামো

সামাজিক ব্র্যাক ব্যাংক-এর সামাজিক মূল্যবোধ - যা পরিমাপ করা হয়েছে আমাদের কর্মীবৃন্দের সক্ষমতা সৃষ্টি ও দক্ষতা বিকাশের মানের মধ্য দিয়ে - গঠিত হয়েছে গ্রাহক ও ক্রেতা, অংশীদারদের আর্থিকভাবে দৃঢ় অন্তর্ভুক্তকরণ, শিল্পায়ন, ও চাকরি সৃষ্টিতে সহায়তা, এবং আগমী প্রজন্মের জন্য স্বাস্থ্য ও শিক্ষাখাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে।

অর্থনৈতিক অংশীদারবৃন্দ, এবং বৃহত্তর অর্থে সমাজের জন্য ব্র্যাক ব্যাংক-এর মূল্যবোধ হলো, ব্যবসা পরিচালনায় আরও কার্যকর উপায় বিকাশ ও বাস্তবায়ন করে প্রবৃদ্ধি অর্জন, এবং বৃহৎ জনগোষ্ঠীকে আনুষ্ঠানিক ব্যাংকিংয়ের আওতায় এনে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নে অবদান রাখা।

পরিবেশগত প্রাকৃতিক পরিবেশের ক্ষেত্রে ব্র্যাক ব্যাংক-এর মূল্যবোধ হলো, অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর ও পরিবেশগত অবক্ষয় সৃষ্টি করে - এমন বিনিয়োগ অথবা অর্থায়ন থেকে বিরত থাকার নীতির মাধ্যমে গ্রাহকদের জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব হ্রাস ও নিরসন করতে সহায়তা করা।

আমাদের উদ্দেশ্য

আমাদের দেশ বাংলাদেশের সামগ্রিক ও ব্যাপক প্রবৃদ্ধি সাধন করা। ব্র্যাক ব্যাংকে আমাদের কর্মকৌশল দেশের প্রতি অঙ্গীকারকেন্দ্রিক এবং তা আমাদের গ্রাহক, জনসাধারণ ও অংশীদারদের ক্রমবর্ধমান প্রবৃদ্ধি বজায় রাখা নির্দেশ করে। এটি আমাদের অভীষ্ট লক্ষ্য, ব্যবসা উন্নয়ন ও ভবিষ্যতে নিজেদের অবস্থান দৃঢ়ভাবে স্থাপনের দিকে ধাবিত করে।


KEY IMPACTS ON SGDs​

সি এস আর ২০১৭

ব্র্যাক ব্যাংক স্বল্পমেয়াদীর চেয়ে দীর্ঘমেয়াদী কর্মসূচি প্রাধান্য দেয় - যা টেকসই সামাজিক প্রভাব এবং এসডিজি’র লক্ষ্যমাত্রাকেন্দ্রিক হয়ে থাকে। সিএসআর-এর মূল খাতসমূহ নিচে উল্লেখ করা হলোঃ
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ৫৫%


শিক্ষা ২৪%


স্বাস্থ্য ১৪%
সমাজকল্যাণ ৫%


শিল্প ও সংস্কৃতি ১%


পরিবেশ ১%

কর্মীদের উদ্যোগ

ব্র্যাক ব্যাংকের কর্মীবৃন্দ ব্যাংকের বার্ষিক তহবিল উন্নয়নের জন্য ম্যারাথন আয়োজন করে থাকে; বন্যার্তদের ত্রাণ কর্মসূচি, গরম-কাপড় বিতরণ, রক্তদান কর্মসূচি প্রভৃতি সামাজিক কর্মকান্ডে উৎসাহ নিয়ে কাজ করে। সিএসআর কর্মসূচিতে কর্মীদের অংশগ্রহণ ব্যাংকের সামাজিক মর্যাদায় নতুন মাত্রা যোগ করার পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানকে অনন্য সম্মিলনে যুক্ত করে।

সিএসআর-এর জন্য স্বীকৃতি

হংকং-ভিত্তিক প্রকাশনা এশিয়া মানি ব্র্যাক ব্যাংককে এর টেকসই সিএসআর কার্যক্রমের জন্য “দি বেস্ট ব্যাংক ফর সিএসআর” পুরস্কার প্রদান করেছে।

এশিয়া মানি পুরস্কার প্রদানের সময় উল্লেখ করেছে, “যদিও দাতব্য প্রতিষ্ঠান ও ব্যাংকের কার্যক্রম এক নয়, তবুও সিএসআর ব্র্যাক ব্যাংকের চালিকাশক্তির একটি অংশ।” রোহিঙ্গা শরণার্থী, অদম্য মেধাবী বৃত্তি, ডায়াবেটিক হাসপাতাল এবং গাঙ্গেয় অববাহিকার বন্যা-দূর্গতদের সহায়তা প্রদান কার্যক্রমকে এশিয়া মানি গুরুত্ব সহকারে মূল্যায়ন করেছে।

পথচলা

ব্র্যাক ব্যাংক আন্তরিকভাবে মানুষ ও সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা প্রতিপালন করে। সামাজিক কর্মকান্ডে ব্যাংকের অংশগ্রহণ ও আবেগ কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতার সংজ্ঞা ও পরিধিকে ছাড়িয়ে যায়। তাই, এই প্রতিষ্ঠান সামাজিক কর্তব্যসমূহ উদ্দীপনা ও স্বতঃস্ফূর্ততার সাথেই পালন করে থাকে।

ব্র্যাক ব্যাংক যতটা সম্ভব নীরবে সামাজিক দায়িত্বসমূহ পালন করে যাচ্ছে। এর সামাজিক উন্নয়ন কর্মসূচির পরিধি আরো বিস্তৃত হবে। প্রতিষ্ঠানটি মানুষ ও সমাজের উপর স্থায়ী সুপ্রভাব প্রতিষ্ঠার জন্য টেকসই অংশীদার হতে চায়। প্রতিষ্ঠানটি মনে করে, তাঁদের সামাজিক কর্মকান্ডে বিনিয়োগের ফল আগামী কয়েক বছরে পাওয়া যাবে।

জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য বা সাসটেইনেবল ডেভেলপেমেন্ট গোল (এসডিজি) অর্জনে অবদান রাখতে ব্র্যাক ব্যাংক তাঁর ক্ষমতা অনুযায়ী কাজ করবে।

ব্র্যাক ব্যাংক সিএসআর ডেস্ক

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী, ব্র্যাক ব্যাংক কর্পোরেট সোশ্যাল রেস্পন্সিবিলিটি (সিএসআর) বা কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা-বিষয়ক বা ডেস্ক চালু করেছে - যা প্রতিষ্ঠানের এই কার্যক্রমকে আরো দৃঢ়, বিস্তৃত, ও ত্বরান্বিত করবে।

ডেস্কটি ব্যাংককে এর সিএসআর কার্যক্রমের বৈচিত্র‌্য রাখতে ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে সহায়তা করবে। জনগণ ব্যাংকের সিএসআর কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে পারবে।

যে কেউ ব্র্যাক ব্যাংকের সিএসআর ডেস্কে সামাজিক দায়বদ্ধতা-বিষয়ক প্রস্তাব প্রেরণ করতে পারেন। ডেস্কে যোগাযোগ করতে প্রধান কার্যালয়ে কল করতে পারেন +৮৮ ০২ ৯৮৮৪২৯২ বর্ধিত: ২০০৯ টেলিফোন নম্বরে অথবা ইমেইল করতে পারেন [email protected] এই ঠিকানায়।

খাতওয়ারি সিএসআর ২০১৭

শিক্ষা

শিক্ষা সমাজ ও জাতিকে আলোকিত করে, এটি জাতির মেরুদন্ড। আলোকিত বাংলাদেশ গড়তে এর দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে ব্র্যাক ব্যাংক শিক্ষার উপর বিশেষ গুরুত্ব দেয়। ব্যাংক শিক্ষার্থীদের বিশেষ মেধা ও বুদ্ধিমত্তার সম্ভাব্যতা উপলব্ধি করে শিক্ষায় সহায়তা দেয়। সামগ্রিকভাবে দেশের বৃদ্ধি ও অগ্রগতি চিন্তা করে ব্র্যাক ব্যাংক শিক্ষাখাতে মোট সিএসআর বাজেটের ৪০ শতাংশেরও বেশি ব্যয় করে। এর সাফল্যগাঁথা সর্বজনবিদিত।

  • ভবিষ্যত সমাজের জন্য শিক্ষার্থীর সম্ভাবনা বিকশিত করা: ব্র্যাক ব্যাংক – প্রথম আলো ট্রাস্ট বৃত্তি
  • উচ্চশিক্ষার স্বপ্নপূর: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তিসমূহ
  • উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন বাস্তবায়: ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃত্তিসমূহ
  • প্রযুক্তি-শিক্ষা সাশ্রয়ীকরণ ইউসেপ ইন্সটিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি

স্বাস্থ্য

জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য বা সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি)’র গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে স্বাস্থ্য-সেবা। বাংলাদেশে স্বাস্থ্য-সেবার সঙ্কট সুস্পষ্ট। তাই ব্র্যাক ব্যাংক স্বাস্থ্যসেবা-বিষয়ক উদ্যোগে অগ্রাধিকার দেয়। এর বিভিন্ন ক্ষেত্রের প্রয়োজনানুসারে আমরা বিনিয়োগ করেছি। আমরা সবাই সুস্থ বাংলাদেশ প্রত্যাশা করি। নিচের তথ্যসমূহ আমাদের স্বাস্থ্য-সেবার উদ্যোগ সম্পর্কে ধারণা প্রদান করবে:

  • পঙ্গুদের জন্য নতুন জীবন দান: সেন্টার ফর দি রিহাবিলিটেশন অফ দি প্যারালাইজড (সিআরপি)
  • ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশান বাংলাদেশ-এর সাথে সার্বিক যৌথ উদ্যোগ
  • চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন হাসপাতালে বার্ন ইউনিট প্রতিষ্ঠায় সার্বিক সহায়তা
  • বাংলাদেশ থ্যালাসিমিয়া হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় সার্বিক সহায়তা
  • অক্ষমকে পুনরায় হাঁটতে সহায়তা করা: মইন ফাউন্ডেশনের কৃত্রিম অঙ্গ প্রতিস্থাপন ক্যাম্প

সমাজকল্যাণ

ব্র্যাক ব্যাংক সামাজিকভাবে দায়বদ্ধ একটি ব্যাংক। ব্র্যাক ব্যাংক মনে করে যে, যে-সমাজ ও সম্প্রদায়ে ব্যাংকটি কাজ করে - এর কল্যাণে অবশ্যই কিছু করা উচিত। মানবিক কারণে ধৈর্য ও মমত্ব নিয়ে তাই এগিয়ে এসেছে ব্যাংকটি। কল্যাণমূলক কাজগুলো ব্যাংকের অনেকগুলো সামাজিক অঙ্গীকারের অংশ।

  • মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবি বীর প্রতীককে আজীবন সহায়তা প্রদান
  • ছিটমহলে নিরাপদ পানির ব্যবস্থা করার উদ্যোগ
  • বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস তুলে ধরতে এশিয়াটিক সোসাইটির সঙ্গে বই প্রকাশের উদ্যোগ
  • সড়ক-নিরাপত্তা সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টি
  • সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের খাবারের ব্যবস্থা করার জন্য ভাতব্যাংক-এর সাথে বিনামূল্যে খাবার বিতরণ কর্মসূচির অংশীদারিত্ব

শিল্প ও সংস্কৃতি

শিল্প ও সংস্কৃতি দেশের পরিচয় বহন করে। এটি মানবাত্মাকে পরিশোধন করে এবং সমাজের বুদ্ধিবৃত্তি ও সৃজনশীলতাকে সংজ্ঞায়িত করে। বাংলাদেশি ব‌্যাংক হিসেবে আমরা দেশের শিল্প, সংস্কৃতি ও ঐহিত্যকে তুলে ধরি ও লালন করি। আমাদের প্রগাঢ় ও অবিচলিত অন্তর্ভূক্তি ব্র্যাক ব্যাংককে শিল্প-সংস্কৃতির সমার্থক করে তুলেছে। নিচে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য উদ্যোগ তুলে ধরা হলো:

  • বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করা: ব্র্যাক ব্যাংক-সমকাল সাহিত্য পুরস্কার
  • নজরুলকে যুবসমাজে ছড়িয়ে দেওয়া: প্রথম নজরুল মেলা

পরিবেশ

ব্র্যাক ব্যাংক একটি বিশ্ববান্ধব ব্যাংক। এর ‘থ্রি পি’ দর্শন ব্যাংকের পরিবেশগত সংযোগকেই বোঝায়। ব্র্যাক ব্যাংক প্রকৃতির জন্য কিছু করতে ব্যাংকিং ও সামাজিক কার্যক্রমের মাধ্যমে গ্রিন ব্যাংকিংকে তুলে ধরে এবং গ্রিন ব্যাংকিংয়ের উদ্যোগ সমর্থন করে। ব্র্যাক ব্যাংক জলবায়ু-ঝুঁকি প্রশমন ও অভিযোজন কর্মসূচিতে এর সিএসআর বাজেটের ১০ শতাংশ বিনিয়োগ করেছে।

  • গ্রাহক সচেতনতা তৈরি ও গ্রিন ব্যাংকিংয়ের প্রতিশ্রুতি পুনরাবৃত্তি
  • গ্রিন অফিস গাইডলাইনের সঙ্গে মেলবন্ধন
  • ব্যবহার হ্রাস, পুনর্ব্যবহার করা, পুনর্ব্যবহারযোগ্যতা সৃষ্টি
  • এসএমই অফিসগুলো সোলারাইজ করা
ForEx Rates

Tue, Sep 17, 2019 9:40 AM

Currency Buying Selling
USD 83.5 84.5
EUR 91.4800 95.5412
GBP 103.3286 107.7051
View complete list